টানা এক মাস ৩ ছাত্রের সর্ব,নাশ, অসুস্থ হতেই ধরা খেলেন ইমাম

কুমিল্লার চান্দিনায় তিন স্কুলছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগে মো. কেফায়েত উল্লাহ নামে এক মসজিদের ইমামকে আটক করেছে পুলিশ।
শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে উপজেলার মাইজখার ইউনিয়নের মাইজখার পূর্বপাড়া এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়।

আটক ২৫ বছর বয়সী কেফায়েত জেলার বরুড়া উপজেলার আগানগর ইউনিয়নের বিজয়পুর গ্রামের মিন্নত আলীর ছেলে। তিনি পূর্ব মাইজখার পূর্বপাড়া এলাকায় একটি জামে মসজিদের ইমাম।

জানা গেছে, মসজিদের বারান্দার একটি কক্ষে থাকতেন কেফায়েত। কয়েকদিন আগে এক স্কুলছাত্রের সঙ্গে খারাপ কাজ করছিলেন তিনি। বৃহস্পতিবার বিকেলে ফের ওই ছাত্রকে তিনি বলাৎকার করেন। পরে বাড়ি ফিরে বিষয়টি বাবা-মাকে জানায় ভুক্তভোগী স্কুলছাত্র।

পূর্বপাড়া এলাকার বাসিন্দা সোহেল জানান, মসজিদে সকাল ও বিকেলে শিশুদের আরবি পড়াতেন ইমাম কেফায়েত। প্রায় এক মাস ধরে তিন শিশুকে বলাৎকার করছিলেন তিনি। ভয়ভীতি দেখালে অভিভাবকদেরও জানায়নি ভুক্তভোগী শিশুরা। বৃহস্পতিবার বিকেলে চতুর্থ শ্রেণির এক স্কুলছাত্রকে বলাৎকার করেন। এতে শিশুটি অসুস্থ হয়ে পড়লে বিষয়টি জানাজানি হয়।

চান্দিনা থানার ওসি মো. সাহাবুদ্দীন খান জানান, ভুক্তভোগী এক শিশুর বাবার লিখিত অভিযোগ পেয়ে অভিযুক্ত কেফায়েতকে গ্রেফতার করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে নিজের দোষ স্বীকার করেছেন তিনি।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*